মেনু নির্বাচন করুন
Text size A A A
Color C C C C
সর্ব-শেষ হাল-নাগাদ: ১৯ মার্চ ২০১৭

শুদ্ধাচার কৌশল

শুদ্ধাচারের বিষয়টি দুর্ণীতি প্রতিরোধের ধারনা থেকে উদ্ভুত এবং ন্যাশনাল ইন্টিগ্রিটি এপ্রোচ ডেভেলপমেন্ট এর সাথে সম্পর্কিত।

১। কর্মপরিকল্পনা প্রণয়ন ও বাস্তবায়ন করতে হবে।

২। কর্মপরিকল্পনা বাস্তবায়নের অগ্রগতি বিষয়ে সভার আয়োজন করতে হবে।

৩। নৈতিকতা ও জাতীয় শুদ্ধাচার বিষয়টি প্রত্যেকটি প্রশিক্ষন সিডিউলে অন্তর্ভুক্ত করতে হবে।

৪। শুদ্ধাচার বিষয়ক ওয়ার্কশপ এর আয়োজন করতে হবে।

৫। মৌলিক অধিকার সংরক্ষন।

৬। বিচারিক কার্যক্রম ও বিভিন্ন প্রকার রাষ্ট্রীয় সেবা প্রদানের ক্ষেত্রে স্বচ্ছতা প্রতিষ্টা।

৭। দেশপ্রেম জাগ্রত করতে হবে। কর্মকর্তা/কর্মচারীদের বদলী, পদায়ন ও পদোন্নতি নীতিমালা যৌক্তিকভাবে প্রণয়ন ও তা যথাযথ অনুসরন।

৮। প্রত্যেকটি দপ্তর, সংস্থা ও কোম্পানীকে একজন ফোকাল পয়েন্ট কর্মকর্তা নির্ধারন।

৯। কর্মপরিকল্পনা যেন প্রতিষ্ঠানের উন্নয়ন  এবং সেবার মান বৃদ্ধির লক্ষ্যে পদ্ধতিগত পরিবর্তনের জন্য উপযোগি হয়।
 


Share with :
Facebook Facebook